'২৫০ বাংলাদেশি নিহত' বলে ভুল ভিডিও ভাইরাল

08:05 AM সামাজিক মাধ্যম

কদরুদ্দীন শিশির: সামাজিক মাধ্যমে গতকাল থেকে দুটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। পাশাপাশি কয়েকটি কিছু ছবিও দেখা যাচ্ছে। মূলত ফেসবুক ও ইউটিউবে এসব ভিডিও-ছবি পোস্ট/শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে একটি নির্মাণাধীন ভবনে গতকাল (১৬ মে) ক্রেন দুর্ঘটনায় আড়াইশো মানুষ মারা গেছেন, যাদের সবাই বাংলাদেশি শ্রমিক! আবার কোথাও নিহতের সংখ্যা ১৫০ এর বেশি বলা হয়েছে। কোথাও নিহতদের মধ্যে 'অনেক' বাংলাদেশি রয়েছেন বলা দাবি করেছেন পোস্টাদাতারা।
 
কিন্তু শেয়ারকৃত ভিডিও ও ছবিগুলো মূল সূত্র খুঁজে দেখা গেছে এসবের সাথে কাতারের ঘটনার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। ফলে দেশে ও প্রবাসে থাকা বাংলাদেশিদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই।

কাতারের ঘটনা:

কাতারে দেশটির সেনাবাহিনীর জন্য একটি নিমাণাধীন ভবনে ১৬ মে (মঙ্গলবার) ক্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে। কাতার, মধ্যপ্রাচ্য ও পশ্চিমা বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম কাতার সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাতে জানাচ্ছে, এতে তিনজন শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন। তবে কিভাবে ঘটনাটি ঘটেছে তা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিস্তারিত জানানো হয়নি।
 
এ সংক্রান্ত সংবাদ দেখতে ক্লিক করতে পারেন-
 
১. আরব নিউজের প্রতিবেদন: 3 workers die at Qatar Defense Ministry construction site
 

২. স্টার ট্রিবিউনের প্রতিবেদন: 3 workers die at Qatar Defense Ministry construction site


৩. ফ্রান্স২৪ এর প্রতিবেদন: Three workers die at Qatar military building site
 
 
এদিকে বাংলাদেশের জাগোনিউজের একটি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আহতদের মধ্যে ৭জন বাংলাদেশি রয়েছেন। জাগোনিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর ড. সিরাজুল ইসলাম।
 
এই প্রতিবেদন অনুযায়ী, "কাতারের রাজধানী দোহায় ক্রেন দুর্ঘটনায় সাত বাংলাদেশি আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৬ মে) স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় দোহার আল খিছা রোডের ২৪ নম্বর ব্রিজের পশ্চিম পাশে আল বান্ডারিয়া কোম্পানির একটি প্রজেক্টে কাজ করার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে চারজন দোহা আল ওয়াকরা হামাদ মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকি তিনজনকে চিকিৎসা শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে আহতদের পরিচয় জানা যায়নি।"
 
কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর ড. সিরাজুল ইসলাম জাগোনিউজকে বলেছেন, "২৫০ জন বাংলাদেশি মারা যাওয়ার যে গুজব তৈরি হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমি নিজে মঙ্গলবার দোহা হামাদ মেডিকেল ও আল ওয়াকরা হামাদ মেডিকেল ভিজিট করেছি।"

ভাইরাল হওয়া ভিডিও এবং ছবি:

এদিকে "কাতারে ক্রেন দুর্ঘটনায় ২৫০ জন বাংলাদেশি নিহত" হিসেবে ভাইরাল হওয়া ভিডিও দুটিতে দেখা যাচ্ছে, বিশাল নিমার্ণযজ্ঞের মধ্যে বেশ কয়েকজন হতাহত শ্রমিককে টেনে সরাচ্ছেন অন্য শ্রমিকরা।
 
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিও দুটি এই লিংকে গেলে পাওয়া যাবে-

 

ফেসবুকে একজনের করা ভিডিও পোস্টটি অর্ধ লক্ষবারের বেশি শেয়ার হয়েছে, এবং হচ্ছে।


ইউটিউবে এই দুটি ভিডিও-ই গতকাল থেকে বিভিন্নজন আপলোড করছেন, আর বলছেন এগুলো কাতারের ক্রেন দুর্ঘটনার ভিডিও।
 

গতকাল ১৭ মে ইউটিউবে আপলোড করা ভিডিও
 

ইউটিউব থেকে এ ধরনের দুয়েকটি লিংক দেয়া যায়:

লিংক: Building accident Qatar 17-05-2017

লিংক: কাতারে ক্রেন দুর্ঘটনা, 250 জন বাংলাদেশি নিহিত
 
 
যেসব ছবি ভাইরাল হয়েছে তার মধ্যে থেকে দুয়েকটি তুলে দেয়া হল:
 


ফেসবুক থেকে নেয়া স্ক্রিনশট-১ 


ফেসবুক থেকে নেয়া স্ক্রিনশট-২


প্রচারিত ভিডিও ও ছবি ভারতের:

বিভিন্ন অনলাইন টুল ব্যবহার করে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ও ছবিগুলোর মূল সূত্র খুঁজতে গিয়ে দেখা গেছে, এগুলোর সাথে কাতারের ঘটনার সংশ্লিষ্টতা নেই।
 
ভিডিও ও ছবিগুলো ভারতের রাজস্থানের উদয়পুরের একটি ক্রেন দুর্ঘটনার চিত্র। গত জানুয়ারি মাসের ৩১ তারিখ ওই দুর্ঘটনা ঘটে। ওই সময় এবং তার পরে বিভিন্ন সময়ে উদয়পুরের ঘটনার দুটি ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করা হয়েছিল বিভিন্ন একাউন্ট থেকে। সেগুলোই বর্তমানে ভুল বা ইচ্ছাকৃতভাবে কারো দ্বারা ভাইরাল হয়েছে।

এখানে ইউটিউবে কয়েক মাস আগে আপলোড করা কিছু ভিডিওর স্ক্রিনশট দেয়া হল:
 

'udaipur crane collapse' লিখে  ইউটিউবে সার্চ দেয়ার পর যে ফলাফল এসেছে তাই উপরের স্ক্রিনশটটিতে দেখা যাচ্ছে। লক্ষ্যণীয়, এখানে দেখা যাওয়া প্রতিটি ভিডিওর আপলোড করা হয়েছে ৩ মাস বা তারও আগে।

 

এবার দেখা যাক একই ভিডিও’কে ‘কাতারের দুর্ঘটনা’ অভিহিত করে আপলোড করা হয়েছে কয়েক ঘন্টা আগে (উপরের দুটি স্ক্রিনশটই ১৮ মে সকালে নেয়া):



crane accident in Qatar লিখে সার্চ দেয়ার পর আসা ফলাফল। এই ভিডিওগুলো আপ করা হয়েছে একদিন আগে (১৮ মে’র) বা কয়েক ঘন্টা আগে।


এবার কয়েক মাস আগে আপলোড করা কয়েকটি ভিডিওর লিংক এখানে সংযুক্ত করা হলো:

 

https://www.youtube.com/watch?v=-AK8bwj4i6k
 
https://www.youtube.com/watch?v=lhagQnov8zk
 
https://www.youtube.com/watch?v=N_Yt5yPwJOI
 
https://www.youtube.com/watch?v=7bdOOIi92Po
 

ছবির ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছে। রাজস্থানের উদয়পুরের ঘটনার ছবিই ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছে কাতারের ছবি মনে করে। উপরের এমন শেয়ার করা ছবির স্ক্রিনশট দেয়া হয়েছে। এবার মূল ছবি সূত্রসহ দেয়া হল:
 


উপরের দুটি ছবির প্রথমটি ভারতীয় পত্রিকা ‘ডেইলি উদয়পুর’ (www.dailyudaipur.com) ৩১ জানুয়ারি ২০১৭-তে প্রকাশিত। ডান পাশের (ফেসবুকের স্ক্রিনশট) ছবি দুটির শেষেরটির সাথে মিলিয়ে দেখলে বুঝা যাবে দুটি ছবি মূলত এক।

এই লিংকে গিয়ে ডেইলি উদয়পুর- এর মূল খবর ও ছবি দেখে নিতে পারেন: 3 laborers dies as hydraulic crane fell down at Railmagra.
 
 
এছাড়া টাইমস অব ইন্ডিয়া ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭-তে প্রকাশিত উদয়পুরের ক্রেন দুর্ঘটনার এই খবরটি পড়ে মিলিয়ে নিতে পারেন ডেইলি উদয়পুরে প্রকাশিত প্রতিবেদনের সাথে: 3 labourers die as crane collapses in Rajsamand
 
 
 

Related Post