"রাখাইনে ৫ সেপ্টেম্বর থেকে সামরিক অভিযান বন্ধ আছে" - সু চি

04:09 AM আন্তর্জাতিক

জাহেদ আরমান

জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে মায়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের প্রধান নেত্রী অং সান সু চি বলেছেন, রাখাইন রাজ্যে গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে ‍সামরিক অভিযান বন্ধ আছে। বিডি ফ্যাক্ট চেক’র গবেষণা দলের অনুসন্ধানে তা মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে।

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী রাখাইন রাজ্যে সেখানকার সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নৃশংস নির্যাতন শুরু করে গত ২৫ আগস্ট। এর তিন সপ্তাহ পর এসে বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন দেশটির ক্ষমতাসীন দলের প্রধান নেত্রী অং সান সু চি। জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, ”গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে সেখানে [রাখাইন রাজ্যে] কোনো ধরণের সামরিক অভিযান পরিচালিত হয়নি।” তাঁর দেওয়া এই বক্তব্য পূর্ণাঙ্গ মিথ্যা।

সেপ্টেম্বর ৯ তারিখে নিউজ ২৪ এর ক্যামেরায় ধরা পড়ে রাখাইন রাজ্যে আগুন জ্বলার দৃশ্য। চ্যানেলটির সিনিয়র রিপোর্টার রামীম হাসান টেলিভিশন লাইভে বলেন, “ডানপাশের ওই গ্রামটিতে কিছুক্ষণ আগে আগুন জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। আপনারা দেখতে পাচ্ছেন আগুনের লেলিহান শিখা এখান থেকেও দেখা যাচ্ছে।”


সেপ্টেম্বর ১৩ তারিখেও মিয়ানমার সীমান্তে আগুন জ্বলতে ও ধোঁয়া উড়তে দেখা গেছে। ৪০ জনেরও বেশি রাষ্ট্রদূত ওই দিন কক্সবাজার সফরকালে এ পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করেছেন। তারা বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের ঘুমধুম ও তুমব্রুর নো-ম্যানস ল্যান্ডে গিয়েও রোহিঙ্গা পরিস্থিতি সরজমিনে পরিদর্শন করেন। কূটনীতিকদের সীমান্ত পরিদর্শনের সময়ও মিয়ানমারের অভ্যন্তরে বসতবাড়িতে আগুন দেয়া হয়। এসময় বিশাল কুণ্ডুলি পাকিয়ে ধোঁয়া উঠতে দেখে বিস্মিত হন তারা।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এর তথ্যানুযায়ী, রাখাইন গ্রামে সহিংসতায় দেশটির সেনাবাহিনী সরাসরি জড়িত। সংস্থাটি নতুন কয়েকটি স্যাটেলাইট-ইমেজ বিশ্লেষণ করে বলেছে, ”২৫শে আগস্ট থেকে ১৪ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাখাইন রাজ্যের ৬২ টি গ্রামে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে। উচ্চ রেজ্যুলেশনের স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা যায়, এর মধ্যে ৩৫ টি গ্রামের বিভিন্ন ভবন ব্যাপক আকারে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পাশাপাশি ২৬ টি গ্রামে প্রায়-বর্তমান সময়ে পরিবেশগত স্যাটেলাইট সেন্সর ব্যবহার করে দেখা গেছে যে সেগুলোতে এখনও আগুন জ্বলছে।”

মানবাধিকার সংস্থাটির এশিয়া শাখার ডেপুটি পরিচালক ফিল রবার্টসন বলেন, ”স্যাটেলাইট ইমেজারিতে যা দেখা গেছে তার সঙ্গে আমাদের মাঠ পর্যায়ের অনুসন্ধানে পাওয়া তথ্যের মিল রয়েছে। মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী রাখাইন রাজ্যের উত্তরাঞ্চলে রোহিঙ্গাদের গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়ার কাজে সরাসরি জড়িত।”

অতএব, অং সান সু চি গত ৫ সেপ্টেম্বর থেকে সহিংসতা বন্ধ রয়েছে বলে যে দাবি করেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

Related Post