Donate

দল/প্রতিষ্ঠান

অসত্য

দল/প্রতিষ্ঠান

April 20, 2020, 3:25 pm

Updated: April 20, 2020, 5:34 pm

‘সচেতনতা তৈরি’তে বানোয়াট বার্তা

Author: BDFactCheck Admin Published: April 20, 2020, 3:25 pm | Updated: April 20, 2020, 5:34 pm

করোনা ভাইরাস মহামারিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অথবা বাংলাদেশের কোনো স্বাস্থ্যসেবা কর্তৃপক্ষ ২৯ থেকে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত সময়কে কোনো ধরনের ‘ডেডলাইন’ হিসেবে ঘোষণা করেনি।

এছাড়া প্রচলিত অর্থে ‘ডিম ফুটানো’ বলতে যা বুঝা যায় মাবদেহে ভাইরাসের পুনরুৎপাদনে তেমন ‘ডিম ফুটানো’র কোনো প্রক্রিয়া নেই।

মানবদেহের কোষের সাথে মিশে ভাইরাল রেপ্লিকেশন (viral replication) পদ্ধতিতে ভাইরাস তার নতুন কপি তৈরি করে দ্রুত ছড়াতে থাকে। ভাইরাস শরীরে প্রবেশের সাথে সাথেই তার viral replication শুরু হয়। এটির জন্য কোনো নির্দিষ্ট দিন তারিখ ঠিক করা থাকে না।

তবে আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ প্রকাশ পেতে অন্তত ১ থেকে ১৪ দিন সময় লাগতে পারে বলে এখন পর্যন্ত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে। তবে কিছু ঘটনায় এর চেয়ে বেশি সময় লাগছে বলেও প্রমাণ পাওয়া গেছে। (সূত্র: https://www.who.int/news-room/q-a-detail/q-a-coronaviruses)

বাংলাদেশে কতজন মানুষ করোনা আক্রান্ত, কে কবে আক্রান্ত হয়েছেন বা হচ্ছেন, বা কখন কোথায় কী সংখ্যায় আক্রান্ত হচ্ছে এসবের কোনো পূর্ণাঙ্গ তথ্যচিত্র বা অনুমান নেই। ফলে কার শরীরে ভাইরাস কতদিন ধরে আছে এবং কার শরীরে কতদিনের মধ্যে উপসর্গ দেখা দিতে পারে তা দিন তারিখ ঠিক করে বলার কোনো সুযোগ নেই।

৭ এপ্রিলের পরেও বাংলাদেশে অথবা যে কোনো ভাইরাস আরও বেশি গতিতে ছড়ানোর শঙ্কা যে নেই তাও নিশ্চিত করে বলার সুযোগ নেই।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *