ফিচারড নিউজ

ফিচারড নিউজ

September 12, 2020, 12:49 am

Updated: September 12, 2020, 12:49 am

পোর্টেবল এয়ার ক্লিনার কি করোনা থেকে বাঁচতে সাহায্য করে?

Author: Qadaruddin Shishir Published: September 12, 2020, 12:49 am | Updated: September 12, 2020, 12:49 am

যখন এই বছরের শুরুতে করোনার সংক্রমণ শুরু হয়, তখন থেকেই সবাই ভাইরাস-প্রতিরোধক এলকোহল-স্যানিটাইজারের পিছনে ছুটছে। এই প্রতিরোধ ব্যবস্থায় এয়ার ক্লিনার কি কোন বাড়তি ভূমিকা রাখতে পারে?

ইদানিং কিছু এয়ার ক্লিনার পাওয়া যাচ্ছে যা হারের মত গলায় পরা যায় এবং তা খুব জনপ্রিয় হচ্ছে। এছাড়া ঘরে ব্যবহারযোগ্য এয়ার ক্লিনারও পাওয়া যাচ্ছে বাজারে।

কিন্তু কথা হচ্ছে, এসবে কি করোনা থেকে বাঁচতে কোনো উপকার হয়?

এনপিআর এর এক রিপোর্ট মতে, আপাতদৃষ্টিতে দেখা যাচ্ছে, কিছু জিনিস আছে যা করোনার সংক্রমণ কমাতে কাজে লাগতে পারে। মূলত, বাতাসে ছড়িয়ে থাকা সংক্রমণ ঘটানোর মত কণাগুলোকে এরা ফিল্টারের মাধ্যমে ধরতে পারে। এভাবেই তারা ঘণ্টায় ৬ বার বাতাসকে পরিস্কার করে।

ঘরের ক্ষেত্রে এই যন্ত্রের মাধ্যমে প্রতি দুই ঘণ্টায় বাতাস বদল করে ফেলতে পারে। এছাড়াও এ ধরণের বাতাস-পরিশুদ্ধকারী যন্ত্র ভাইরাসের বিরুদ্ধে এক ধাপ এগিয়ে কাজ করতে পারে বলে ধারণা করা যায়।

শুরুতে যদিও বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা বলেছিল, করোনাভাইরাস বাতাসে বাহিত হয় না। কিন্তু পরবর্তীতে জুলাই মাসে তারা মত বদল করে বাতাসের মাধ্যমেও বাহিত হওয়ার সম্ভাবনাকে আমলে নিয়েছে

“যেখানে অনেক মানুষ একসাথে মিলিত হচ্ছে, সেখানে এই যন্ত্র তুলনামূলকভাবে ভাল কাজ করতে পারে” বলে মত দেন হার্ভার্ড টিএইচ চ্যান স্কুল অফ পাবলিক হেলথের সহযোগী অদ্যাপক জোসেফ গার্ডার এলেন। তিনি আরো বলেন, “এটি লাগিয়ে চালু করলেই এই সুবিধা পাওয়া যায়”।

আমাদের কী এয়ার-পিউরিফায়ার কেনা উচিত?

এটি নির্ভর করে আপনি একা না একাধিক ব্যক্তির সাথে বসবাস করেন। অথবা তাদের কেউ কি করোনায় ফ্রন্টলাইনে কোন দায়িত্ব পালন করছে বা অন্যভাবে আক্রান্ত হবার শঙ্কা আছে কিনা।

অবশ্য কারো পরিবারের কেউ যদি আক্রান্ত হয়েই যান, সেক্ষেত্রে এই পিউরিফায়ার ব্যবহার করাটা বেশ কার্যকর হবে।

দূর্ভাগ্যবশত এয়ার ক্লিনার কতভাগ বাতাস পরিস্কার করতে পারে সে ব্যাপারে নিশ্চিত কোন তথ্য নেই। কিন্তু পোর্টল্যান্ড স্টেট ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক রিচার্ড কোরসি জানান, তারা এগুলো পরীক্ষা করছেন। দেখছেন যন্ত্রগুলো কিভাবে ঘরের বাতাস পরিস্কার করে।

তাদের পর্যবেক্ষণ বলছে, বড় রুমগুলোতে এর ব্যবহারে বাতাসে অন্যান্য করোনার উপস্থিতি বেশ কমেছে। যদিও কিছু চিকিৎসক বলছেন, এগুলো তেমন কাজ করবেনা। তবে এ ব্যাপারে দ্বিমত প্রকাশ করে এলেন ও কোরসি বলেন, ডাক্তারদের উক্ত মন্তব্য ভুল এবং তা দুইভাবে ভুল।

এলেনের মতে, HEPA ফিল্টার ৯৯.৯৭% বাতাস-বাহিত কণাকে পরিস্কার করতে পারে যাদের আকার খুব ছোট, সাধারণত .৩ মাইক্রোন।
এছাড়া কোরসি বলেন, বাতাসে এই কণাগুলো থুথু বা মিউকাস ছাড়া বাচতে পারেনা। আর এই যন্ত্র এই থুথু-মিউকাস বাতাস থেকে সরিয়ে নেয়।

যদিও এই এয়ার-পিউরিফায়ার বাড়তি নিরাপত্তা দিলেও কেবল এটির ব্যবহার আমাদের শতভাগ নিরাপদ রাখতে সক্ষম নয়। এর বাইরেও করোনা সংক্রান্ত সকল নির্দেশনা মেনে চলতে হবে, সামাজিক দূরত্ব কম রাখার চর্চা করতে হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *