“দেশে প্রায় ১৩ হাজারের মতো পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে”-শেখ হাসিনা: দাবিটি অসত্য

07:09 AM আওয়ামী লীগ

ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদক।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দাবি করেছেন, “দেশে প্রায় ১৩ হাজারের মতো পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে। এর মধ্যে সাত হাজারের মতো দৈনিক পত্রিকা রয়েছে।” শুক্রবার নিউ ইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই দাবি করেন। অথচ বিডি ফ্যাক্টচেক-এর অনুসন্ধানে দেখা যাচ্ছে, দেশে মোট পত্রিকার সংখা তিন হাজার ৬১টি।

জাতিসংঘের ৭৩তম সাধারণ অধিবেশনে যোগদান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিউ ইয়র্কে আয়োজিত প্রবাসী সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। জাতিসংঘের বাংলাদেশ মিশন শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। এতে প্রধানমন্ত্রী বলেন,  “অাওয়ামী লীগ সরকারই দেশে এতো বিপুল মিডিয়া প্রকাশ ও প্রচারের সুযোগ করে দিয়েছে। দেশে প্রায় ১৩ হাজারের মতো পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে। এর মধ্যে ৭ হাজারের মতো দৈনিক পত্রিকা রয়েছে। জেলায় জেলায় দৈনিক পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে। টিভি মিডিয়া বেসরকারি খাতে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। আর এসব টিভিতে যারা টক শো করে তারা কথায় কথা টক বানিয়ে নিজেরাও টক হয়ে যাচ্ছে।”

এ সম্পর্কিত নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক বাংলা পত্রিকার (দ্য উইকলি বাংলা পত্রিকা) শিরোনাম, “নিউ ইয়র্কে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা: জনস্বার্থেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশ করা হয়েছে, সাংবাদিকরাও আইনের উর্দ্ধে নয়।”  

চিত্র ১: নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক বাংলা পত্রিকার স্ক্রিনশট।

এ সম্পর্কিত ভিডিও ফুটেজ (২মিনিট ১০ সেকেন্ডে) দেখুন: নিউ ইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সূত্র; যমুনা টেলিভিশন।

বিডি ফ্যাক্টচেক প্রধানমন্ত্রীর দাবির সত্যতা যাচাই করার জন্য গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা শাখার নিবন্ধন শাখা থেকে সারা দেশে নিবন্ধিত পত্রিকার তালিকা সংগ্রহ করেছে। তালিকাটি হালনাগাদ করা হয়েছে ২০১৮ সালের ৩০ জুন।

চিত্র ২: ডিএফপি প্রকাশিত সারাদেশে পত্রিকার তালিকা।

তালিকায় দেখা যাচ্ছে, সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী দেশে সংবাদপত্রের সংখ্যা তিন হাজার ৬১ টি। এরমধ্যে দৈনিক পত্রিকা ১২৩১টি, যার মধ্যে ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিকের সংখ্যা ৪৮৩ টি আর মফস্বল থেকে দৈনিক পত্রিকার সংখ্যা ৭৩২টি। এছাড়াও সারাদেশে অর্ধ সপ্তাহিক পত্রিকা ৩টি, সাপ্তাহিক পত্রিকা ১১শ ৮১টি; পাক্ষিক পত্রিকা সংখ্যা ২১৩টি; মাসিক পত্রিকার সংখ্যা ৪১০টি; দ্বিমাসিক পত্রিকার সংখ্যা ৮টি; ত্রৈমাসিক ২৮টি; চতুর্মাসিক ১টি; ষান্মাসিক ২টি এবং বার্ষিক পত্রিকার সংখ্যা একটি।

আমাদের সিদ্ধান্ত: “দেশে প্রায় ১৩ হাজারের মতো পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে। এর মধ্যে সাত হাজারের মতো দৈনিক পত্রিকা রয়েছে।”- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই দাবিটি অসত্য।

Related Post