বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিখোঁজের খবরটি ভুয়া

15 November, 2018 17:11 PM সামাজিক মাধ্যম

ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদক:

সামাজিক মাধ্যমে একটি সংবাদ ভাইরাল হয়েছে গতকাল থেকে। www.dlonlinetv.com নামের অখ্যাত একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনটির শিরোনাম হচ্ছে, "অবশেষে জানা গেলো ‘বঙ্গবন্ধু-১’ স্যাটেলাইট নিখোঁজ! গরীব দেশের ৩ হাজার কোটি টাকা লুটপাট কমপ্লিট!"

কথিত সংবাদটিতে একটি অজ্ঞাত নামা সূত্রের বরাত দেয়া হয়েছে। প্রথম প্যারাটি এখানে হুবহু তুলে ধরছি--

"বাংলাদেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ “বঙ্গবন্ধু-১” অবশেষে ব্যর্থ হয়েছে। এটির সাথে কোনো যোগাযোগ নেই ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের। যদিও গত ৫দিন আগে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফ্রান্সের কোম্পানী তালিস এলিনিয়া স্পেস এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশ কমিউনেকশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটিড (বিসিএসসিএল) কার্যালয়ে ‘ট্রান্সফার অফ টাইটেল’ বা স্বত্ত্ব বুঝিয়ে দিয়েছে, তবে তা ছিল পেপার ট্রান্সফ্রার মাত্র, বাস্তবে স্যাটেলাইটের সাথে কোনো যোগাযোগ নাই বাংলাদেশের বা থালেসের। খবরের সুত্র বিসিএসসিএল-এর দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা।"

এখানকার মূল তথ্য হল- বাংলাদেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ “বঙ্গবন্ধু-১” অবশেষে ব্যর্থ হয়েছে। এটির সাথে কোনো যোগাযোগ নেই ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের। জানিয়েছেন "বিসিএসসিএল-এর দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা"। বিসিএসসিএল হচ্ছে bangladesh communication satellite company limited.

অজ্ঞাত একটি সূত্রের দাবি ছাড়া কোনো প্রমাণ নেই দাবিটির পক্ষে। কোনো স্বীকৃত গণমাধ্যমও এভাবে একটি অজ্ঞাত সূত্রের বরাতে এত বড় তথ্য প্রকাশ করলে তার বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে। আর যেহেতু কোনো সংবাদমাধ্যম হিসেবে dlonlinetv স্বীকৃত বা খ্যাতিমান নয়, ফলে নামহীন কোনো সূত্রে প্রকাশিত এই তথ্যে আস্থা রাখার এমনিতেই কোনো কারণ নেই।

উপরিউক্ত ওয়েবসাইটটির কোথাও এটির প্রকাশকদের কোনো তথ্য নেই, যে তাদের সাথে যোগাযোগ করে এ বিষয়ে আরও জানার চেষ্টা করা যাবে।

এছাড়া এই দাবি সংক্রান্ত কোনো তথ্য দেশি বা বিদেশি কোনো সংবাদমাধ্যমেও নেই। অথচ, ৬ দিন আগে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রণ যখন বাংলাদেশ সরকারের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছিল, তখন দেশি সংবাদমাধ্যমের পাশাপাশি স্যাটেলাইট সংক্রান্ত বিদেশি একাধিক সংবাদমাধ্যমে এই খবর এসেছিল। কোনো স্যাটেলাইট নিখোঁজ হলে বা নিয়ন্ত্রণকক্ষ এর উপর নিয়ন্ত্রণ হারালে তা অন্তত স্যাটেলাইট সংক্রান্ত খোঁজ খবর রাখা ওয়েবসাইটগুলোতে পাওয়া যাওয়ার কথা।

সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে, একটি স্যাটেলাইট মহাকাশে কখন কী অবস্থায় আছে তা ট্রাকিংয়ের জন্য নামকরা অনেক বিজ্ঞানপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আছে। তারা ২৪ ঘণ্টা প্রতিটি স্যাটেলাইটের যাত্রপথ ট্রাকিং করে।

bdfactcheck.com এর পক্ষ থেকে এরকম একাধিক সাইট ভিজিট করে দেখা গেছে, Bangabandhu-1 স্যাটেলাইটি সচল আছে। প্রতি মুহূর্তের ট্রাকিং আপডেট এসব সাইটে পাওয়া যাবে।

n2yo একটি নামকরা স্যাটেলাইট ট্রাকিং সাইট। তাদের ওয়েবসাইটের এই লিংকে গিয়ে দেখতে পারেন Bangabandhu-1 এর ট্রাকিং ডিটেইল। এখানে আজ বৃহস্পতিবার রাত বাংলাদেশ সময় পৌনে ১১টার সময় নেয়া একটি স্ক্রিনশট তুলে দেয়া হল--

এছাড়া www.satbeams.com বা www.satview.org বা www.satflare.com, বা in-the-sky.org ইত্যাদি গিয়েও দেখা যাবে (এসব সাইট বাংলাদেশ সরকার চালায় না)।

Bangabandhu-1 নিখোঁজ হলে তা কেউ ট্রাকিং করার সুযোগ হতো না। অর্থাৎ আলোচ্য খবরটি ভুয়া।

Related Post