আনন্দবাজার পত্রিকার নামে ভুয়া সংবাদের ছবি প্রচার

17 December, 2018 02:12 AM ইলেকশন চেক ২০১৮

ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদক:

এবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম- ফেসবুকে ভারতের প্রভাবশালী দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকার নামে একটি ভুয়া সংবাদের স্ক্রিনশট প্রচার করা হচ্ছে। কলকাতার এই বহুল প্রচারিত দৈনিকে “বাংলাদেশে ৫০% ফেয়ার নির্বাচন হলে ক্ষমতাসীনদের পরাজয় নিশ্চিত” শিরোনামের একটি লিড নিউজের ছবি বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তাদের ফেসবুক-ওয়ালে শেয়ার দিচ্ছে। অনেকেই এই সংবাদের সত্যতা জানতে চেয়ে বিডি ফ্যাক্টচেক-এর কাছে ইমেইল ও ক্ষুধেবার্তা পাঠিয়েছেন। বিডি ফ্যাক্টচেক-এর অনুসন্ধানে উক্ত খবরের সত্যতা পাওয়া যায়নি।

স্ক্রিনশট ১: আনন্দবাজার পত্রিকার নামে ভূয়া সংবাদের ছবিটি ফেসবুকে বিভিন্নভাবে শেয়ার হচ্ছে।

আনন্দবাজার পত্রিকার যে স্ক্রিনশটটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে সেখানে কয়েকটি শিরোনাম ছাড়া কোনো অাধেয়ই স্পষ্ট নয়। বাংলাদেশ নিয়ে যে শিরোনামটি দেখা যাচ্ছে তা হচ্ছে “বাংলাদেশে ৫০% ফেয়ার নির্বাচন হলে ক্ষমতাসীনদের পরাজয় নিশ্চিত”। এই শিরোনামটি আনন্দবাজার পত্রিকার নিজস্ব সার্চ অপশনে গিয়ে খুঁজে পাওয়া যায়নি। এছাড়া জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগলেও সংবাদটি খুঁজে পাওয়া যায়নি।

স্ক্রিনশট ২: বাংলাদেশের নির্বাচন সংক্রান্ত আনন্দবাজার পত্রিকার নামে প্রচারিত সংবাদ শিরোনামটি পত্রিকাটির নিজস্ব ওয়েবসাইটে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ভাইরাল হওয়া ছবিটি ভালভাবে লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, আনন্দবাজারের মূল ডিজাইনের সাথে এর বেশ পার্থক্য রয়েছে। মূল পত্রিকায় যে মেন্যু আইটেম আছে তা এই ছবিতে দেখা যাচ্ছে না।  এছাড়া আনন্দবাজার পত্রিকার লগোটা ছাড়া আর কোনো ডিজাইনের সাথে এই ছবির সাদৃশ্য খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

আনন্দবাজার পত্রিকার যে স্ক্রিনশটটি ভাইরাল হয়েছে সেখানে কিছু শিরোনামে অসামঞ্জস্যতা দেখা যাচ্ছে। এরকম দুটি শিরোনাম হচ্ছে “হয়ে ওঠায় উদ্বেগ সিপিএমে,” এবং “চাওয়া আসনে খুশি নন সনিয়াও”। এই দুটি শিরোনাম পড়ে পাঠক কোনো অর্থ উদ্ধার করতে পারে না। স্বভাবতই, উপরের সংবাদটিকে পেস্ট করে জায়গা দিতে গিয়েই নিচের অংশের শিরোনাম কাটা পড়েছে। পাঠক মাত্রই বোঝেন, আনন্দবাজার পত্রিকার মতো একটি ঐতিহ্যবাহী দৈনিক এই ধরণের ভুুল করার কথা না।

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকায় যে সংবাদটি দেখা যাচ্ছে তার নিচে অন্য সংবাদও দেখা যাচ্ছে। আর এটি হচ্ছে, “সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ কনভয়, ক্ষব্ধ মুরালীরা”। সংবাদপত্রে একটি শিরোনামের নিচে সাধারণত একটি সংবাদই থাকে। একটি সংবাদের কয়েকটি আইটেম থাকলে সেক্ষেত্রে একটি বড় সংবাদের নিচে ছোট ছোট সংবাদগুলো থাকে। কিন্তু এই স্ক্রিনশটে দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশের নির্বাচন সংক্রান্ত সংবাদ শিরোনামটির নিচে যে সংবাদটি আছে তা সম্পূর্ণ ভিন্ন।

অতএব বোঝাই যাচ্ছে, আনন্দবাজারের নামে বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে যে সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে তা এডিট করা। মূল পত্রিকায় এই ধরণের কোনো সংবাদ আসেনি।

Related Post