এনসাইক্লোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকাতে বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে ভুল তথ্য

19 December, 2018 23:12 PM আন্তর্জাতিক

জাহেদ আরমান:

বিশ্ববিখ্যাত রেফারেন্স বই এনসাইক্লোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকাতে বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে ভুল তথ্য দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, “বাংলাদেশের পতাকার রঙ পাকিস্তানের পতাকার মতো গাঢ় সবুজ যা অধিকাংশ জনসাধারণের ইসলামের প্রতি বিশ্বাসের প্রতীক।” কিন্তু বিডি ফ্যাক্টচেকের অনুসন্ধানে দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের পতাকার ‘গাঢ় সবুজ’ এক রকম নয়। আদর্শগত ও প্রকাশভঙ্গির দিক থেকেও দুটি রঙের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে।

এনসাইকোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকাতে “ফ্ল্যাগ অব বাংলাদেশ” শিরোনামের আর্টিকেলটির লেখক উইথনি স্মিথ। তিনি এনসাইক্লোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকার একজন সম্পাদক। ২০১১ সালের ২৫ এপ্রিল আর্টিকেলটি এনসাইকোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকার অনলাইনে যুক্ত করা হয়। ২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর এটার সর্বশেষ সংশোধন করা হয়।

এনসাইকোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকাতে বাংলাদেশের পতাকার বর্ণনা দিতে গিয়ে লেখা হয়েছে,  “The flag of Bangladesh, like that of Pakistan, is dark green. This is a symbol of the Islamic faith of most of the population.” অর্থাৎ, বাংলাদেশের পতাকা পাকিস্তানের পতাকার মতো গাঢ় সবুজ। এটা দেশের অধিকাংশ জনগণের ইসলামী বিশ্বাসের প্রতীক।

এখানে দুইটি বিষয় বিবেচ্য। প্রথমত, বাংলাদেশের পতাকার রঙ পাকিস্তানের পতাকার মতো গাঢ় সবুজ কিনা? দ্বিতীয়ত, বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজ রঙ কী প্রকাশ করে?

বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজ ও পাকিস্তানের পতাকার গাঢ় সবুজের মধ্যে পরিমাণগত পার্থক্য আছে। জাতীয় পতাকা বিধিমালা-১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০) এর মতে, “পতাকার সবুজ পটভূমি হবে প্রতি হাজারে প্রোসিয়ন ব্রিলিয়ান্ট গ্রীন এইচ-২ আর এস ৫০ পার্টস।” রঙ পরিমাপের এই পদ্ধতি সচরাচর ব্যবহৃত হয় না। সেক্ষেত্রে রঙ পরিমাপ করার জন্য আরজিবি (রেড, ব্লু, গ্রিন) এবং সিএমওয়াইকে (সায়ান, ম্যাজেন্ডা, ইয়েলো, ব্ল্যাক) ব্যবহৃত হয়। বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজ রঙের আরজিবি ০, ১০৬, ৭৮ এবং সিএমওয়াইকে ১, ০, ০.২৬৪, ০.৫৮৪। অন্যদিকে পাকিস্তানের পতাকার গাঢ় সবুজ রঙের আরজিবি ১, ৬৫, ২৮ এবং সিএমওয়াইকে ৯৮, ০, ৫৭, ৭৫। এখান থেকে পরিস্কার, দুই দেশের পতাকার ‘গাঢ় সবুজ রঙ’ এর মধ্যে বেশ পার্থক্য রয়েছে। তাই কোনো ভাবেই বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজকে পাকিস্তানের পতাকার ’গাঢ় সবুজ’ এর সাথে তুলনা করা যায় না।

বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজ রঙ কী প্রকাশ করে সেক্ষেত্রেও ভুল তথ্য দিয়েছে এনসাইক্লোপেডিয়া অব ব্রিটেনিকা। বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পতাকা অধিকাংশ জনগণের ইসলামী বিশ্বাসের প্রতীক। জাতীয় পতাকা বিধিমালা-১৯৭২ (সংশোধিত ২০১০)এ পতাকার গাঢ় সবুজ রঙ কী প্রকাশ করে সে ব্যাপারে স্পষ্ট কিছু বলা হয়নি। ১৯৭২ সালে পটূয়া কামরুল হাসান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বাংলাদেশের পতাকার মাপ, রঙ ও তার ব্যাখ্যা সম্বলিত যে প্রতিবেদন দিয়েছিলেন সেখানে বলা হয়েছে, “বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজ রঙ বাংলাদেশের সবুজ প্রকৃতি ও তারুণ্যের প্রতীক।” পরবর্তীতে কামরুল হাসানের এই ব্যাখ্যাটি সরকারিভাবে গ্রহণ করা হয়। ২০১৩ সালের ১৫ ডিসেম্বর প্রথম আলোতে রবিশঙ্কর মৈত্রৗ “আমাদের জাতীয় পতাকা” শিরোনামের একটি প্রবন্ধে বলেন, বাংলাদেশের পতাকার “সবুজ রং বাংলাদেশের সবুজ প্রকৃতি ও তারুণ্যের প্রতীক, বৃত্তের লাল রং উদীয়মান সূর্য স্বাধীনতাযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারীদের রক্তের প্রতীক। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার এই রূপটি ১৯৭২ সালের ১৭ জানুয়ারি সরকারিভাবে গৃহীত হয়।” বাংলাদেশের বিভিন্ন পাঠ্য পুস্তকেও এই ব্যাখ্যাটি আছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের পতাকার ‘গাঢ় সবুজ’ ইসলাম এবং সেদেশের অধিকাংশ মুসলিম জনগোষ্ঠীর প্রতীক।

সুতরাং আদর্শগত দিক থেকেও বাংলাদেশের পতাকার গাঢ় সবুজের সাথে পাকিস্তানের পতাকার ‘গাঢ় সবুজ’এর পার্থক্য রয়েছে।

Related Post