এসব ছবি চীনের উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের দৃশ্য নয়

12 January, 2019 08:01 AM সামাজিক মাধ্যম

ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদক:

কিছু ফেসবুক পেইজে বেশ কিছু ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, সেগুলো চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুর মুসলিমদের ওপর চীনা কর্তৃপক্ষের নির্যাতনের ছবি। কিন্তু বাস্তবে দেখা যাচ্ছে প্রচারিত এসব ছবি ভুয়া।

চীনে সাম্প্রতিক সময়ে মুসলিমদের ওপর নানাভাবে নির্যাতনের বিশ্বাসযোগ্য অনেক রিপোর্ট ও প্রমাণাদি আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় প্রকাশিত হলেও বাংলাদেশে প্রচারিত এসব ছবি মুসলিম নির্যাতনের চিত্র নয়। ভিন্ন সময়ের, ভিন্ন ঘটনার ছবিকে 'বর্তমানে মুসলিম নির্যাতনের ছবি' বলে ছড়ানো হচ্ছে।

"পশ্চিমবঙ্গ মুসলিম বুদ্ধিজীবী মহল" নামে একটি পেইজে নিচের ছবিগুলো পোস্ট করা হয়েছে। দেখুন স্ক্রিনশটে--

bdfactcheck.com এর অনুসন্ধানে দেখা গেছে, এখানে থাকা চারটি ছবিই হলো চীনে 'ফালুন গংগ' (falun gong) নামক একটি সামাজিক আন্দোলনের সদস্যদের ওপর সে দেশের কর্মকর্তাদের নিপীড়নের দৃশ্য। ফালুন গংগ এর আধ্যাত্মিক ও সামাজিক কার্যক্রমকে ১৯৯৯ সালে নিষিদ্ধ করার পর সংগঠনটির সদস্যদের ওপর গণহারে নিপীড়ন চালাতে থাকে চীন সরকার। হাজার হাজার মানুষকে গ্রেফতার করে কারাগারে বর্বর নির্যাতন চালানো হয়। এবং অনেকে বন্দী অবস্থায়ই মৃত্যু বরণ করেন।

ফালুন গংগ এর ওপর সরকারি নিপীড়নের চিত্র নিয়মিত মনিটর করে minghui.org নামের একটি ওয়েবসাইট। উপরের চারটি ছবি ওই ওয়েবসাইটে আছে; এবং সাথে বিস্তারিত বর্ণনাও দেয়া আছে যে, এগুলো কয়েক বছর আগে ফালুন গংগের সদস্যদের ওপর চালানো নির্যাতনের চিত্র।

প্রথম ছবটিতে চেয়ারে হাত বাঁধা যে মহিলাকে দেখা যাচ্ছে তার নাম Ren Suying. তার ওপর এই নিপীড়নের চিত্র ২০১১ সালে minghui.org ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়। তার বাড়ি Inner Mongolia এর Chifeng শহরে।

২০১১ সালে তাকে নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন নিচের স্ক্রিনশটে--।

প্রতিবেদনের বিস্তারিত পড়তে যান এই লিংকে।

২য় ছবিটিতে চেয়ারের নিচে বাঁধা যে মহিলাকে দেখা যাচ্ছে তার নাম হল Li Xiuzhen. তিনিও ফালুন গংগের সদস্য হওয়ার 'অপরাধে' গ্রেফতার হয়ে বন্দী অবস্থা নির্যাতনের শিকার হন, এবং ২০০৯ সালের অক্টোবরে মারা যান। তার ওপর নির্যাতনের ও মৃত্যুর খবর পড়তে পারেন এই লিংকে। 

২০০৯ সালের জুলাই মাসে তার গ্রেফতার হওয়া ও নির্যাতনের বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট ও ছবি দেখুন এই লিংকে। 

স্ক্রিনশটে দেখুন একই রিপোর্ট ও ছবি--

এভাবে তৃতীয় যে ছবিতে পিছমোড়া করে বাঁধা মহিলাও (নাম Kang Aimin) বৌদ্ধ ধর্মের বিশ্বাস অনুসারে পরিচালিত ফালুন গংগের সদস্য হওয়ার কারণে নির্যাতিত হন। দেখুন তার ছবি ও রিপোট

দেখুন স্ক্রিনশটে--

চতুর্থ ছবিও একই সংগঠনের এক মহিলা (নাম Song Bing) সদস্যের ওপর নির্যাতনের চিত্র। দেখুন এই লিংকে। 

এবার নিচে দেখুন আরও কিছু ছবি ছড়িয়েছে 'উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের চিত্র' বলে। সেগুলোও বাস্তবে ফালুন গংগের সদস্যদের ওপর নির্যাতনের চিত্র। bdfactcheck.com এই ছবিগুলোও আলাদা আলাদাভাবে চেক করে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।

Related Post