আরএসএস কর্মীর মুসলিমবিদ্বেষী বক্তব্য এডিট করে ভাইরাল, ‘আমীন’ বলে শেয়ার!

05 February, 2019 13:02 PM সামাজিক মাধ্যম

ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদক:

ভারতের ধর্মীয় উগ্রপন্থী সংগঠন আরএসএস এর এক নারী কর্মী গত বছর সেদেশে একটি অনুষ্ঠানে প্রচণ্ড ইসলামবিদ্বেষী বক্তব্য দেন। সামাজিক মাধ্যমে বক্তব্যটি ভাইরাল হওয়ার পর হিন্দু-শিখ-মুসলিম ব্লগাররা তার বক্তব্য খণ্ডন করে আরও অনেক ভিডিও তৈরি করেন, এবং এমন মুসলিমবিদ্বেষী বক্তব্যের নিন্দা জানান।

ওই নারীর দেয়া বক্তব্যের ৯ মিনিট ৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও অনলাইনে আছে। দেখুন এই লিংকে। 

মূল ভিডিও থেকে বিভিন্ন অংশ কেটে ৩ মিনিট ৫৬ সেকেন্ডের একটি ভিডিও বাংলাদেশে অনেকে ফেসবুকে পোস্ট করছেন। “মোঃ সবুজ” নামে একজন “👨‍👨‍👦Febu Tamasha👑 ফেবু তামাশা💑” নামে একটি ফেসবুক গ্রুপে তেমনই একটি পোস্ট করেছেন। ৩ ফেব্রুয়ারি করা পোস্টটি ৫ ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার) বিকাল ৫টা পর্যন্ত ৪২ হাজারের বেশি শেয়ার হয়েছে।

৯ মিনিট ৫ সেকেন্ডের মূল ভিডিওটির ৫২ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট ১৮ সেকেন্ড পর্যন্ত ওই নারী যা বলছেন তা হলো---

“...এটা হলো আজান। আসো, আসো, ঘুম ছেড়ে আসো। (এরপর) সবাই ঝুঁকে, খাড়া হয়। এরপর আয়াতও পড়া হয়। আর আয়াতগুলো নিয়ে আমাদের সমস্যা থাকবে কেন? আমরা যেমন মন্দিরে ঘণ্টা বাজিয়ে আসি; সেরকম যদি ওরা নামাজের মধ্যে করে। (এটা ভাবা) সম্পূর্ণ ভুল হবে। ওরা নামাজ এইজন্যে পড়ছে যে, তারা আমাদের বিনাশ করবে।....”

অন্যদিকে বাংলাদেশে ভাইরাল হওয়া ৩ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড দীর্ঘ ভিডিওটির ৪৪ সেকেন্ড থেকে ওই নারীকে বলতে শোনা যাচ্ছে-- “এটা হলো আজান। আসো, আসো, ঘুম ছেড়ে আসো। (এরপর) সবাই ঝুঁকে, খাড়া হয়। এরপর আয়াতও পড়া হয়। আর আয়াতগুলো নিয়ে আমাদের সমস্যা থাকবে কেন? আমরা যেমন মন্দিরে ঘণ্টা বাজিয়ে আসি; সেরকম যদি ওরা নামাজের মধ্যে করে। (এটা ভাবা) সম্পূর্ণ ভুল হবে।”

মূল ভিডিওতে এরপরে “ওরা নামাজ এইজন্যে পড়ছে যে, তারা আমাদের বিনাশ করবে।” কথাগুলো থাকলেও এডিট করা ভিডিওতে এটি ফেলে দেয়া হয়েছে। এর বদলে “আমাদের গাভী নিয়ে ওদের সমস্যা নেই। আমাদের মা-বোনদের নিয়ে ওদের সমস্যা নেই।” বাক্যগুলো অন্যত্র থেকে কেটে যোগ করা হয়েছে।

এভাবে এডিটেড ভিডিওটি মূল ভিডিওর নানা অংশের ‘কাট-পিস’, এবং এর কারণে বক্তার মূল বক্তব্যকে পুরো উল্টো বুঝার সুযোগ তৈরি হয়েছে।

এবং উল্টো ধারণা দেয়ার জন্যই এটি পোস্ট করা হয়েছে। যেমন মোঃ সবুজ ভিডিওটির ক্যাপশন হিসেবে লিখেছেন, “হিন্দু বোনটির কথা শুনলে আপনিও অবাক হয়ে যাবেন”। অর্থাৎ, বক্তা এবং বক্তব্যের এই এডিটেড ভার্সনটিকে তিনি ইতিবাচক হিসেবে উপস্থাপন করেছেন। স্বাভাবিকভাবেই অসংখ্য মুসলিম না বুঝেই ‘আমিন’ ‘আল্লাহ আপনাকে হেদায়ত দান করুন’ ইত্যাদি মন্তব্য যুক্ত করে এটি শেয়ার করছেন।

এডিট করা ভিডিওটির নিচে কিছু মন্তব্য--

এভাবে শেয়ার করছে অনেকে--

Related Post