সবচেয়ে বেশি নেতিবাচক ভুয়া সংবাদ তারেক রহমানের বিরুদ্ধে

14 February, 2019 02:02 AM ইলেকশন চেক ২০১৮

জাহেদ আরমান:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সবচেয়ে বেশি নেতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে বিএনপি ও দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে নিয়ে। আর সবচেয়ে বেশি ইতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে আওয়ামী লীগ ও দলটির সভাপতি শেখ হাসিনাকে নিয়ে। বিডি ফ্যাক্টচেক-এর এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমনটিই উঠে এসেছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গত এক বছর ধরে মুলধারার গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মোট ৫০টি রাজনৈতিক ভুয়া সংবাদ চিহ্নিত করে বিডি ফ্যাক্টচেক। এর মধ্যে আওয়ামী লীগকে নিয়ে ১১টি, বিএনপিকে নিয়ে ১২টি, শেখ হাসিনাকে নিয়ে ১২ টি, বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে ৪টি, তারেক রহমানকে নিয়ে ৬টি, সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে একটি, এবং অন্যান্য দল ও ব্যক্তিকে নিয়ে ৪টি ভুয়া সংবাদ চিহ্নিত করা হয়েছে।

গ্রাফ-১: রাজনৈতিক ভুয়া সংবাদ।

বাংলাদেশে যেহেতু অন্য কোনো সংস্থা রাজনৈতিক ফ্যাক্টচেক করে না তাই শুধু বিডি ফ্যাক্টচেককেই নমুনা হিসেবে নেয়া হয়েছে। সংস্থাটির প্রতিবেদনে উল্লেখিত ভুয়া সংবাদের লিংক থেকে প্রতিটি ভুয়া সংবাদ বের করে তা নমুনায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

ভুয়া সংবাদের আধেয় বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক রহমানকে নিয়ে যে ছয়টি ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে তার সবগুলোই নেতিবাচক। বিএনপিকে নিয়ে যে ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে তারমধ্যে নয়টি বিএনপির জন্য নেতিবাচক ও তিনটি ইতিবাচক ভুমিকা রেখেছে।

পড়ুন তারেক রহমানকে নিয়ে ছড়ানো কয়েকটি ভুয়া সংবাদের ফ্যাক্টচেক:

তারেক রহমানের ভিডিও এডিট করে পুলিশের বিরুদ্ধে প্রচারণা

বিশ্বের অবৈধ অস্ত্র ব্যবসায়ীদের তালিকায় কি তারেক রহমানের নাম এসেছে?

তারেক রহমানকে নিয়ে আবারও ভুয়া সংবাদ

গ্রাফ-২: ইতিবাচক ও নেতিবাচক ভুয়া সংবাদ।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে নিয়ে যেকয়টি ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে তার অধিকাংশই ইতিবাচক। শেখ হাসিনার পক্ষে ইতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে ১০টি আর নেতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে দুইটি।

পড়ুন শেখ হাসিনাকে নিয়ে ছড়ানো কয়েকটি ভুয়া সংবাদের ফ্যাক্টচেক

নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য শেখ হাসিনার নাম প্রস্তাব: সংবাদটি অসত্য

“শেখ হাসিনা নিকৃষ্ট স্বৈরশাসক” - খবরটি বিভ্রান্তিকর

গোপালগঞ্জ-৩ আসনে শেখ হাসিনা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার খবরটি ভুয়া

আওয়ামী লীগের পক্ষে ইতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে ছয়টি আর নেতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে পাঁচটি।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে ইতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে তিনটি আর নেতিবাচক ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে একটি।

এছাড়া অন্য রাজনৈতিক দল ও ব্যক্তি সম্পর্কে যেসব ভুয়া সংবাদ ছড়ানো হয়েছে তারমধ্যে দুইটি ইতিবাচক আর দিইটি নেতিবাচক।



Related Post