ভারত-পাকিস্তানে সহস্রাধিক একাউন্ট-পেজ বন্ধ করেছে ফেসবুক

03 April, 2019 16:04 PM গণমাধ্যম

বিডি ফ্যাক্টচেক ডেস্ক:

সম্প্রতি অগ্রগণযোগ্য আচরণের কারণে ভারত ও পাকিস্তানের ৭১২টি একাউন্ট ও ৩৯০ টি পেজ বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক । বন্ধ করা এসব একাউন্ট-পেজের অধিকাংশের সাথেই ভারতের প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল কংগ্রেস এবং পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সম্পৃক্ততা রয়েছে।

মূলত ফেসবুককে রাজনৈতিক অসৎ উদ্দেশ্যে ব্যবহার এবং ভূল তথ্য প্রচারের প্লাটফর্ম হিসেবে ব্যবহার করায় এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ফেসবুক কতৃপক্ষ।

বাংলাদেশেও গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ফেসবুক বিভিন্ন একাউন্ট-পেজ বন্ধ করে দিয়েছিলো যেগুলো থেকে বিরোধী দল সম্পর্কে অসত্য তথ্য প্রচার করা হচ্ছিল।

এদিকে ভারতের প্রায় ৩০০ মিলিয়ন লোক ফেসবুকের আওতাধীন থাকায় সকল রাজনৈতিক দলের নির্বাচনী প্রচারণাই চলছে সামাজিক মাধ্যমটির উপর ভিত্তি করে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ফেইসবুকের মাধ্যমে তার লাখ লাখ ভক্তকে রাজনৈতিক বার্তা দিচ্ছেন, ব্যবহার করছেন হাজার হাজার আনভেরিফাইড পেজ। এসব পেইজে বিরোধীপক্ষের নানারকম সমালোচনা প্রকাশ করা হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

তবে এসব ছাড়িয়ে তাক লাগানো খবর হচ্ছে, “সম্মিলিত অগ্রহণযোগ্য আচরণ” এর দায়ে ফেইসবুক কংগ্রেসের প্রায় ৫৪৯টি একাউন্ট এবং ১৩৮টি পেজ বন্ধ করে দিয়েছে।

এক অফিশিয়াল টুইটে কংগ্রেস দাবি করেছে, তাদের কোন অফিশিয়াল পেইজ অথবা তাদের সাথে সম্পৃক্ত কোন ফেসবুক পেজই বন্ধ হয়নি। এছাড়া তারা বন্ধ হওয়া একাউন্ট আর পেজগুলোর তালিকা চেয়েছে ফেসবুক কতৃপক্ষের কাছে।

এছাড়া সিলভার টাচ নামে একটি ভারতীয় কোম্পানির ১৫টি একাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে বলে ফেসবুকের দাবি। ফেসবুকের সাইবার-সিকিউরিটি প্রধান নাথানিয়েল গ্লেইচার রয়টার্সকে বলেছেন, উক্ত কোম্পানিটি মূলত বিজেপির মোবাইল অ্যাপ তৈরির সাথে সম্পৃক্ত। তবে বিজেপির আইটি প্রধান অমিত মাল্ভিয়া সিলভার টাচের ব্যাপারে ফেসবুকের দাবিকে অস্বীকার করেছেন।

সাইবার নিরাপত্তা প্রধান গ্লেইচার এক বিবৃতিতে বলেছেন, এসকল আইডি কোন ধরনের কন্টেন্ট নয়, মূলত ব্যবহারকারীদের আচরণের জন্যে বন্ধ করা হয়েছে।

সেক্ষত্রে ফেসবুক কিছু ভুয়া একাউন্টধারীর কথা উল্লেখ করছে যারা ‘কংগ্রেসের আইটি সেলের সাথে সম্পৃক্ত’ এবং বিজেপির বিরুদ্ধে পোস্ট দিচ্ছেন। একইসাথে, সিলভারটাচের ১২টি একাউন্ট এবং ১টি পেজ বন্ধ করা হয়েছে যারা বিজেপির পক্ষে অন্য রাজনৈতিক প্রতিদন্ধীদের বিরুদ্ধে অসদাচরণ করেছে বলে দাবি ফেসবুকের।

সিলভারটাচ কি আসলেই বিজেপির সাথে সম্পৃক্ত কিনা সেই প্রশ্নে গ্লেইচার বলেন, আমরা আগে থেকেই জানি তারা বিজেপির জন্যে কাজ করা ভারতীয় কোম্পানি এবং প্রফাইলের লিংক থেকেই তিনি সে দাবি করছেন।

এছাড়া “দ্য ইন্ডিয়ান আই” নামের প্রায় ২০ লাখ ফলোয়ারের একটি “বিজেপি-সমর্থক’ পেজ ডিলেট করা হয়েছে। মূলত পেজটি “উগ্র জাতীয়তাবাদ” এবং মোদির কট্টর সমর্থক হিসেবে জনপ্রিয়, দাবি গবেষণা প্রতিষ্ঠান আটলান্টিক কাউন্সিলের। এছাড়া নিয়ম ভাঙ্গা এবং অসত্য তথ্য প্রচারের দায়ে ভারতের নানাপক্ষের আরও ৯৪টি একাউন্ট এবং ২২৭টি পেজ বন্ধ করেছে ফেসবুক।

অন্যদিকে পাকিস্তানেও ফেসবুক একই কারণ দেখিয়ে ৫৭টি একাউন্ট, ২৪টি পেজ, ৭টি গ্রুপ এবং ১৫টি ইন্সটাগ্রাম একাউন্ট বন্ধ করেছে। বন্ধ হওয়া এসব একাউন্ট-পেইজের সাথে পাকিস্তানের সামরিক কর্মকর্তাদের একটি গ্রুপ এমন “অগ্রহণযোগ্য আচরণে”র সাথে জড়িত বলে দাবি ফেসবুকের।

পাকিস্তানে ফেসবুক একাউন্ট-পেজের সাথে কিছু ইন্সটাগ্রাম আইডিও বন্ধ করে দিয়েছে যা মূলত পাকিস্তান সরকার, ভারত এবং পাকিস্তান সেনাবাহিনী নিয়ে নানা তথ্য প্রচার করত।

ফেসবুকের দাবি, এসব একাউন্ট-পেজের সাথে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আইএসপিআরের (ISPR) কিছু কর্মকর্তা জড়িত আছে। তবে এ ব্যাপারে আইএসপিআরের কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। পাকিস্তান থেকে ডিলেট হওয়া একাউন্ট-পেজগুলোর ফলোয়ার ছিল প্রায় ৩০ লাখ।

ফেসবুক সারাদুনিয়া জুড়েই এধরণের পদক্ষেপ নিচ্ছে । গত সপ্তাহে ফিলিপাইনে এক ব্যবসায়ীর সামাজিক প্রচারণা বন্ধ করে দিয়েছে যিনি তার দাবি মতে সে দেশের প্রেসিডেন্টের ১৬ সালের নির্বাচনী প্রচারণার দায়িত্বে ছিলেন। এরকম পদক্ষেপ এমনকি রাশিয়া-ইরানেও ফেসবুক নানাসময়ে নিয়েছে।

অনুবাদ: মিনহাজ আমান

তথ্যসূত্র: রয়টার্স

 

Related Post