ভূয়া খবর: ইসলামকে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করেছে ইউনেস্কো

04:03 AM গণমাধ্যম

কদরুদ্দীন শিশির

সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে একটি খবর অনেকে ফেসবুকে শেয়ার করছেন। ২০১৬ সালের জুলাই মাসে বাংলাদেশের কয়েকটি পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয় যে, ইসলামকে সবচেয়ে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করেছে ইউনেস্কো। মূলধারার সংবাদমাধ্যমের মধ্যে যুগান্তর, প্রথম আলোর ইংরেজি ভার্সন, কালের কণ্ঠ, পরিবর্তন ডটকম, ইনকিলাব ইত্যাদি পত্রিকায় সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া জামায়াতে ইসলামীর ওয়েবসাইটেও সংবাদটির বাংলা অনুবাদ পাওয়া গেছে।

শুধু বাংলাদেশ না, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ব্যাপকভাবে এটি প্রচারিত হয়েছে।

সংবাদটির মূল সূত্র ভারতীয় একটি ‘স্যাটায়ার অনলাইন পত্রিকা’। জুনতা কা রিপোর্টার নামের পত্রিকাটির ওয়েবসাইট হচ্ছে এই- www.juntakareporter.com.

পত্রিকাটির “UNESCO declares Islam as the most peaceful religion of the world” শিরোনামের রিপোর্টে বলা হয়, “আন্তর্জাতিক শান্তি সংস্থা ইউনেস্কো এক বিবৃতিতে ইসলামকে সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ ধর্ম হিসেবে ঘোষণা করে। বিভিন্ন ধর্মের ওপর গবেষণা করে প্রতি ছয় মাস পরপর ইউনেস্কো এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে থাকে। ইউনেস্কোর ধর্মতত্ত্ব গবেষণা বিভাগের প্রধান রবার্ট ম্যাগি বলেন, ‘ছয় মাস গবেষণা ও চুলচেরা বিশ্লেষণের পর আমরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি যে, অন্য ধর্মের তুলনায় ইসলাম সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ ধর্ম।’ সাম্প্রতিক সময়ে ইসলামের নামে সন্ত্রাসবাদের ঘটনা উল্লেখ করে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে ম্যাগি বলেন, ‘সন্ত্রাসীদের কোনো ধর্ম নেই। ইসলাম মানে শান্তি। সুতরাং ইসলামের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের কোনো সম্পর্ক নেই।’ ‘শান্তির ধর্ম ইসলাম’ এই বাণী সংবলিত একটি সার্টিফিকেটও দিয়েছে ইউনেস্কো। তুরস্কের এক তরুণ চিত্রশিল্পী এর ডিজাইন করেন। শান্তির প্রতীক হিসেবে মুসলিম দেহ, মাদ্রাসা, মসজিদ ও হালাল খাবারের দোকানের ছবিও প্রদর্শন করে ইউনেস্কো।”

সংবাদটি অনলাইনে এত বেশি ছড়িয়ে পড়ে যে, ইউনেস্কো বাধ্য হয় এ বিষয়ে বিবৃতি দিয়ে নিজেদের বক্তব্য পরিস্কার করতে। একই বছরের ১১ জুলাই ইউনেস্কোর ওয়েবসাইটে বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, এটি পুরোপুরি ভূয়া একটি খবর। জাতিসংঘের সংস্থাটি ইসলাম নিয়ে এমন কোনো গবেষণা প্রকাশ করেনি।

ইউনেস্কোর সাইটে প্রকাশিত বিবৃতি:

“UNESCO denounces fake statement” শিরোনামের বিবৃতিতে বলা হয়, “We wish to refer to the recent allegations posted on the website juntakareporter, citing an alleged statement and certificate from UNESCO declaring "Islam as the most peaceful religion of the world". Such statement was never made by the Organization and that the certificate reproduced on this website is a fake one. The website that published this information is a satirical media.”

অর্থাৎ, এই খবর ভূয়া। ইউনেস্কো এরকম কিছু কখনো প্রকাশ করেনি।

কয়েকটি পত্রিকার রিপোর্টের স্ক্রিনশট:

যুগান্তরের লিংক: https://www.jugantor.com/news-archive/islam-and-life/2016/07/15/45153/

ইনকিলাবের লিংক: https://www.dailyinqilab.com/article/45786/

পরিবর্তন ডটকমের লিংক: http://www.poriborton.com/prints/19184

জামায়াতে ইসলামির ওয়েবসাইটে রিপোর্টটির লিংক: https://jamaat-e-islami.org/previous/details.php?artid=MjcxMjI=

প্রথম আলোর ইংরেজি ভার্সন থেকে রিপোর্টটি সরিয়ে ইউনেস্কোর বিবৃতিটি প্রকাশ করা হয়েছে। লিংক: http://en.prothomalo.com/bangladesh/news/111619/UNESCO-denounces-fake-statement-on-Islam

Related Post